Thu. Jul 25th, 2024
শিক্ষক শিক্ষার্থী বিপরীতমুখী অবস্থান
গোপালগঞ্জে শিক্ষকদের কর্ম বিরতি কর্মসূচীর প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

গোপালগঞ্জে শিক্ষকদের কর্ম বিরতি কর্মসূচীর প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ।।

দ্বিতীয় শিফ্টে শিক্ষকদের সম্মানী ভাতা প্রদান নিয়ে জটিলতা সৃষ্টির কারণে গত ১ আগষ্ট থেকে কর্ম বিরতি কর্মসূচী পালনের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা থেকে বিরত থাকেন গোপালগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরা। এদিকে, দ্বিতীয় শিফ্টের ক্লাস বন্ধ থাকার প্রতিবাদ ও দ্রুত ক্লাস চালুর দাবীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় ওই শিফ্টের শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে গোপালগঞ্জ  বঙ্গবন্ধু সড়কে বেরিকেট দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। প্রায় ঘন্টা খানেক ওই সড়কে সকল ধরণের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট। ১১টার দিকে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ড. মো. মিজানুর রহমানসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ শিক্ষার্থীদের শান্ত করে ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।

বিক্ষোভ কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, ছাত্র প্রতিনিধি জুবায়ের খান, নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী পলি আক্তার সানজিদা, দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী শেখ ইয়াছিনসহ আরো অনেকে।

বক্তারা বলেন, আগামী ২ নভেম্বর থেকে আমাদের পরীক্ষা শুরু হবে। এখন যদি আমরা ক্লাস করতে না পারি তাহলে আমরা চরম ক্ষতির সম্মুখীন হবো। শিক্ষকদের বেতন জটিলতা আমাদের বিষয় নয়। আমরা চাই ক্লাস করতে।

গোপালগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শাখা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন বলেন, দ্বিতীয় শিফ্ট পরিচালনা জন্য টিএসসি এবং পলিটেকনিকের শিক্ষক-কর্মচারীদের নিয়মিতভাবে ২০১৫ সালের পে-স্কেল অনুযায়ী মূল বেতনের ৫০ ভাগ ভাতা প্রদান করা হতো। গত ১৮ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক স্মারকে জানানো হয় ৩০ জুন থেকে আহরিত মূল বেতনের ৫০ ভাগ এর পরিবর্তে গ্রেড ভিত্তিক সাকুল্যে সম্মানী প্রদান করা হবে। যা ২০০৯ সালের পে-স্কেলের অর্ধেক। এটা আমাদের শিক্ষকদের জন্য খুবই অপমানজনক। তাই, আমরা গত ১ আগষ্ট থেকে দ্বিতীয় শিফটের সকল ধরণের কার্যক্রম বন্ধ রেখে প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমাদের দাবী মেনে নেয়া না পর্যন্ত এ প্রতিবাদ অব্যাহত থাকবে।

মিজানুর রহমান মানিক

০৬.০৮.১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published.